বাচ্চা বদলের অভিযোগ নার্সের বিরুদ্ধে

মালদা,১৪ ফেব্রুয়ারিঃ বাচ্চা বদলের অভিযোগ উঠল মালদা মেডিকেল কলেজ  হাসপাতালের নার্সের বিরুদ্ধে।যদিও পরে নিজেদের বাচ্চা ফেরত পান বাবা-মা৷ঘটনাকে কেন্দ্র করে ব্যপক চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে মালদা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল চত্বরে৷


জানা গিয়েছে, বুধবার রাতে প্রসব যন্ত্রণা নিয়ে মালদা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে আসার পথে অ্যাম্বুলেন্সেই সন্তান প্রসব করেন ইংরেজবাজারের নরহাট্টা অঞ্চলের লক্ষ্মীঘাটের বাসিন্দা সাগরি বসাক৷সেই সময় অ্যাম্বুলেন্সেই তার স্বামী স্বরূপ মণ্ডল সদ্যোজাতের ছবি নিজের মোবাইল ফোনে তুলে রাখেন৷এরপর অ্যাম্বুলেন্সটি মালদা মেডিকেলে পৌঁছোলে প্রসুতি বিভাগের নার্সরা সদ্যোজাত ওই পুত্রসন্তানকে পরিষ্কার করার জন্য নিজেদের হেপাজতে নেন৷

স্বরূপ বাবুর অভিযোগ, রাত ১২টা নাগাদ নার্সরা এসে তাঁদের জানান যে  বাচ্চার পরিস্থিতি ভালো নেই৷সেই সময় নার্সরা তাকে দিয়ে বেশ কয়েকটি কাগজে স্বাক্ষর করিয়ে নেন৷খানিক বাদে নার্সরা একটি মৃত পুত্রসন্তান তাদের হাতে তুলে দেন৷মৃত সন্তান দেখে তারা কান্নাকাটি শুরু করেন৷কিন্তু এরপরই তাদের সন্দেহ হলে মোবাইল ফোনে তোলা ছবির সঙ্গে বাচ্চাটিকে মিলিয়ে দেখে তারা নিশ্চিত হন যে  মৃত বাচ্চাটি তাদের নয়৷এরপরই উত্তেজনা ছড়ায় হাসপাতালে।ঝামেলার খবর পেয়ে হাসপাতালে ছুটে আসে পুলিশ৷


যদিও পরে হাসপাতালের নার্সরা নিজেদের ভুল স্বীকার করে সদ্যোজাত পুত্রসন্তানকে সাগরি দেবীর হাতে তুলে দেন।

তবে কিভাবে নার্সদের এমন ভুল হল তা জানতে ঘটনার তদন্ত শুরু করা হয়েছে।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

This site is protected by reCAPTCHA and the Google Privacy Policy and Terms of Service apply.