বাড়ি না ফিরে সরকারী হোমে থেকেই পড়াশোনা চালিয়ে যেতে চায় ধূপগুড়ির সাহসি নাবালিকা

ধূপগুড়ি, ১৪ মার্চঃ নিজের বিয়ে রুখতে বাড়ি থেকে পালিয়ে ধূপগুড়ি থানার পুলিশের দ্বারস্থ হয়েছিল নাবালিকা সুমনা(নাম পরিবর্তিত)।এরপর তার বাবা মা ১৮ বছরের আগে তার বিয়ে দেবে না বলে বাড়ি ফিরিয়ে নিয়ে যেতে চাইলেও এই মুহূর্তে বাড়ি ফিরতে চাইছে না সুমনা।সে চায় সরকারী হোমে থেকে পড়াশোনা চালিয়ে যেতে।


মঙ্গলবার সকালে ধূপগুড়ির ১৬ নম্বর ওয়ার্ডের প্রাক্তন কাউন্সিলার দয়ামণি রায়ের বাড়ীতে আশ্রয় নেওয়া সুমনার সাথে দেখা করতে পৌছান ধূপগুড়ির বিধায়ক মিতালী রায় এবং পুরসভার ভাইস চেয়ারম্যান রাজেশ কুমার সিং।দুজনেই এদিন দীর্ঘ সময় ধরে নাবালিকার সাথে কথা বলেন এবং তার পড়াশোনা চালিয়ে যাওয়ার ব্যাপারে সাহায্য করার কথাও জানান।

এদিন ধূপগুড়ির বিধায়ক বলেন, মেয়েটি এখনো অপ্রাপ্তবয়স্ক ফলে তার বিয়ে দেওয়া সম্পূর্ণ বেআইনী কাজ হবে।সে যদি পড়াশোনা করে নিজের পায়ে দাড়াতে চায় তাহলে আমরা তার পাশে দাঁড়াব।


আরও পড়ুনঃ-

ধূপগুড়িতে নিজের বিয়ে রুখল নাবালিকা

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

This site is protected by reCAPTCHA and the Google Privacy Policy and Terms of Service apply.