Home / উত্তরবঙ্গ / জোর করে জমির দলিলে সই,প্রতিবাদ করতে গিয়ে স্বামীর সামনেই খুন হলেন স্ত্রী   

জোর করে জমির দলিলে সই,প্রতিবাদ করতে গিয়ে স্বামীর সামনেই খুন হলেন স্ত্রী   

মালদা,১৪ নভেম্বরঃ জোর করে জমির দলিলে সই।ঘটনার প্রতিবাদ করলে স্বামীর সামনেই স্ত্রীকে গলা কেটে খুন করা হল।চাঞ্চল্যকর এই ঘটনাটি ঘটেছে মালদার রতুয়া থানার বাজিতপুর গ্রামে।

জানা গিয়েছে, রাতুয়ার বাজিতপুর এলাকার বাসিন্দা সনাতন ঘোষ পেশায় সিভিক ভলান্টিয়ার।প্রায় বছর দুয়েক আগে পার্শবর্তী ভালুকার মন্ডল পাড়া এলাকায় আড়াই বিঘা জমি কিনেন সনাতন।এরপর থেকেই ভালুকার বাসিন্দা সুকলাল সাহার সাথে জমি নিয়ে বিবাদ হয় সনাতন ঘোষের।অভিযোগ,সুকলাল বেশ কয়েকবার সনাতনের কেনা সেই আড়াই বিঘা জমি দখলেরও চেষ্টা করে।এই বিষয়ে রতুয়া থানায় অভিযুক্ত সুকলাল সাহার বিরুদ্ধে অভিযোগও জানায় সনাতন।কিন্তু অভিযোগ জানানোর পর থেকেই সনাতন সহ গোটা পরিবারকে সুকলালের তরফে প্রানে মারার হুমকি দেওয়া হচ্ছিল বলে অভিযোগ।

অভিযোগ,রবিবার গভীর রাতে বিহার থেকে ভাড়াটে গুন্ডাদের নিয়ে এসে সনাতনের বাড়িতে চড়াও হয় সুকলাল।এরপর সনাতনকে হাত পা বেঁধে জোর পূর্বক জমির দলিলে সই করিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করে দুষ্কৃতির দল।তাতে সনাতনের স্ত্রী খুসবু ঘোষ বাধা দিলে ঘরের মধ্যেই তাকে গলা কেটে খুন করা হয় বলে অভিযোগ।ঘটনার খবর পেয়ে রাতেই ঘটনাস্থলে ছুটে যায় রতুয়া থানার পুলিশ বাড়ির ভেতরে থেকে সিভিক ভোলেন্টিয়ারের স্ত্রী খুসবু ঘোষের মৃত দেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

পুলিশ সূত্রে খবর, সিভিক কর্মীর বাড়িতে হামলা চালানোর অভিযোগে ভবেশ মহালদার নামে এক ব্যক্তিকে আটক করেছে পুলিশ। তবে ঘটনায় মূল অভিযুক্ত সুকলাল সাহা পলাতক।তার খোঁজে তল্লাশি চালাচ্ছে পুলিশ।

Check Also

শিলিগুড়িতে গৃহবধূকে বালিশ চাপা দিয়ে খুনের চেষ্টা শ্বশুরবাড়ির সদস্যদের

শিলিগুড়ি,১৯ জুলাইঃ বিয়ের পর থেকেই টাকা চেয়ে অত্যাচারের অভিযোগ এবং বালিশ চাপা দিয়ে খুন করার …