অপেক্ষার অবসান, রাশিয়ায় তৈরি প্রথম করোনার ভ্যাকসিন, টিকা নিলেন পুতিন কন্যা

অবশেষে অপেক্ষার অবসান।প্রথম করোনা ভাইরাসের ভ্যাকসিনের উদ্বোধন করলেন রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন।


মঙ্গলবার সরকারি একটি বৈঠকে অংশ নিয়ে পুতিন জানান, নানা পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়ে নিজের যোগ্যতা অর্জন করেছে ওই টিকা। করোনাভাইরাস প্রতিরোধের ক্ষমতা রয়েছে এই টিকার।টিকা ব্যবহারের আগে যাবতীয় সব পরীক্ষা করা হয়েছে।এই ভ্যাকসিনটি করোনাভাইরাসের মোকাবিলায় দীর্ঘমেয়াদী রোগ-প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি করবে।শুধু তাই নয় দেশ তথা বিশ্ববাসীর শঙ্কা দূর করতে তাঁর দুই মেয়ের একজনের শরীরে এই ভ্যাকসিন ইতিমধ্যেই প্রয়োগ করা হয়েছে এবং সে ভাল আছে বলেও জানান পুতিন।

রাশিয়ার সরকারের তরফে জানানো হয়েছে,রাশিয়াই প্রথম দেশ যারা করোনাভাইরাসের টিকা রেজিস্টার করল। প্রথমে স্বাস্থ্যকর্মী, শিক্ষক ও আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকি রয়েছে এমন পেশার সঙ্গে যুক্তদের টিকা দেওয়া হবে।তারপর সাধারণ মানুষের শরীরে এর প্রয়োগ করা হবে।


তবে, বিশেষজ্ঞরা এই ভ্যাকসিন নিয়ে সন্দিহান।কারণ, এখনও ভ্যাকসিনের চূড়ান্ত ক্লিনিক্যাল ট্রায়ালের প্রক্রিয়া চলছে।এর সুরক্ষা ও কার্যকারিতা এখনও চূড়ান্ত ছাড়পত্র মেলেনি।তার আগেই, ঘোষণা করা কতটা যুক্তিসঙ্গত, সেই নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন বিশেষজ্ঞরা।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

This site is protected by reCAPTCHA and the Google Privacy Policy and Terms of Service apply.