শিশুকন্যাকে ধর্ষণের পর শ্বাসরোধ করে খুন, গ্রেফতার ব্যক্তি

আলিপুরদুয়ার,২৬ ফেব্রুয়ারিঃ আট বছরের শিশুকন্যাকে ধর্ষণের পর শ্বাসরোধ করে খুন।ঘটনায় গ্রেফতার মূল অভিযুক্ত।চাঞ্চল্যকর ঘটনাটি ঘটেছে আলিপুরদুয়ারের বারোবিশার লালস্কুল এলাকায়।মৃত শিশুকন্যার নাম পম্পি বর্মণ।সে তৃতীয় শ্রেণীর ছাত্রী ছিল।অন্যদিকে অভিযুক্তের নাম শম্ভু রায়।


জানা গিয়েছে, গতকাল স্কুল থেকে বাড়ি ফিরে এসে খেলতে যায় পম্পি।এরপর অনেক রাত হয়ে গেলেও সে বাড়ি না ফিরে আসলে তাকে খুঁজতে বের হয় পরিবারের লোকেরা।এদিকে সেইসময় শম্ভু রায়ের স্ত্রী পম্পির একজোড়া চটি জুতো নিয়ে পম্পিদের বাড়িতে গিয়ে জানতে চায় যে সেটি পম্পির কিনা।জুতো দেখে বাড়ির লোক শনাক্ত করে সেটি পম্পির।শম্ভুর স্ত্রীকে জিজ্ঞাসাবাদ করে পম্পির পরিবারের লোকেরা জানতে পেরে এই জুতো রাস্তায় কুড়িয়ে পেয়েছে শম্ভু।

এরপরই ঘটনার খবর দেওয়া হয় পুলিশে।পুলিশ এসে শম্ভুকে জিজ্ঞাসাবাদ শুরু করে।শম্ভুর কথায় সন্দেহ হলে তাকে ফাঁড়িতে নিয়ে যায় পুলিশ।পরে পুলিশের টানা জেরায় শম্ভু স্বীকার করে যে সে পম্পিকে ধর্ষণ করেছে এবং পম্পি চিৎকার করতে শুরু করলে তাকে শ্বাসরোধ করে খুন করে।খুন করার পর রায়ডাক নদীর চরে পম্পির মৃতদেহ পুঁতে দেয় সে।


এরপর ওইদিন রাত আড়াইটা নাগাদ নদীর চর থেকে পম্পির মৃতদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।ঘটনা ঘিরে ব্যপক উত্তেজনা ছড়ায় এলাকায়।ইতিমধ্যেই শম্ভুকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

This site is protected by reCAPTCHA and the Google Privacy Policy and Terms of Service apply.