শতাব্দী এক্সপ্রেসের খাবার খেয়ে গুরুতর অসুস্থ বহু যাত্রী

পিকনিক করতে বেরিয়ে শতাব্দী এক্সপ্রেসের খাবার খেয়ে গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়লেন প্রায় ৩৫-৪০ জনের একটি দল।ট্রেনের প্যান্ট্রিকার থেকে দেওয়া ব্রেড-বাটার খেয়েই তাঁরা অসুস্থ হয়ে পড়েন বলে দাবি।ওই ট্রেনে ক্যাটারিং-এর দায়িত্বপ্রাপ্ত সংস্থাকে দু-লক্ষ টাকা জরিমানা করেছে আইআরসিটিসি।


মুম্বইয়ের বোরিভেলি থেকে সুরাটে একদিনের জন্য পিকনিক করতে গিয়েছিলেন প্রায় জনা চল্লিশেক মহিলা। সফর করতে শতাব্দী এক্সপ্রেসের টিকিট কেটেছিলেন তাঁরা।ট্রেনের প্যান্ট্রিকার থেকে দেওয়া ব্রেড বাটার খেয়ে অসুস্থ হয়ে পড়তে থাকেন একের পর এক মহিলা।এরা প্রায় সবাই গৃহবধূ।নাগাড়ে বমি সঙ্গে অসহ্য পেট ব্যথা চলতেই থাকে।

সকাল সাড়ে আটটা নাগাদ ট্রেন ভেসটন স্টেশনে ঢুকলে চেন টেনে ট্রেন থামান একজন। ততক্ষণে চারজন মহিলার অবস্থা রীতিমত গুরুতর হওয়ায়, সেই স্টেশনে তাদের চিকিৎসা শুরু করা হয়।


সুরাট রেলস্টেশনের ডিরেক্টর টিএল গরুড় জানিয়েছেন, স্টেশনেই অসুস্থ মহিলাদের ইঞ্জেকশন ও ওষুধ দেওয়া হয়।কয়েকজনের অবস্থা এখন স্থিতিশীল।

ঘটনায় দুঃখপ্রকাশ করে আইআরসিটিসি জানিয়েছে, খাবারের নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়েছে। রিপোর্ট পাওয়ার পরেই কড়া ব্যবস্থা নেওয়া হবে। ট্রেনের ক্যাটারিংয়ের দায়িত্ব দেওয়া সংস্থাকে ২ লক্ষ টাকা জরিমানা করা হয়েছে বলে জানিয়েছে আইআরসিটিসি।প্যান্ট্রিকারের সুপারভাইজারকে বরখাস্ত করা হতে পারে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site is protected by reCAPTCHA and the Google Privacy Policy and Terms of Service apply.