শিলিগুড়িতে করোনা আক্রান্ত স্বামীকে বাড়ি থেকে বের করে দিলেন স্ত্রী

শিলিগুড়ি, ২৭ আগস্টঃ স্বামী করোনায় আক্রান্ত। মোবাইলে সেই ম্যাসেজ আসতেই কিছু না ভেবেই স্বামীকে বাড়ি থেকে বের করে দিলেন স্ত্রী। ঘটনা শিলিগুড়ির। হায়দারপাড়ায় একটি বাড়িভাড়া নিয়ে স্ত্রীয়ের সঙ্গে থাকতেন ওই ব্যক্তি। কিছুদিন আগে সোয়াব টেস্ট করিয়েছিলেন। বুধবার সন্ধ্যায় মোবাইলে ম্যাসেজ আসে ও ব্যক্তিকে জানানো হয় তিনি করোনায় আক্রান্ত। সেকথা জানান স্ত্রীকেও। এরপরই তাকে বাড়ি থেকে বের করে দেওয়া হয় বলে অভিযোগ। ওই ব্যক্তির ইস্টার্ন বাইপাস সংলগ্ন দক্ষিণ একটিয়াশালেও একটি বাড়ি রয়েছে। ভেবেছিলেন সেখানে গিয়ে হোম আইসোলেশনে থাকবেন। কিন্তু ততক্ষণে সেখানকার বাসিন্দাদের ব্যক্তির স্ত্রী জানিয়ে দেন যে তার স্বামী করোনায় আক্রান্ত। এরপর সেখানেও তাকে ঢুকতে দেওয়া হয়নি। ব্যক্তি বাড়িতে না ঢুকতে পেরে রাস্তায় বসে থাকেন কয়েক ঘণ্টা।
এদিকে ওই ব্যক্তিকে এলাকায় থাকতে দেওয়া যাবেনা এই দাবিতে বিক্ষোভ দেখাতে থাকেন কিছু এলাকাবাসী। এমনকি ইস্টার্ন বাইপাসে পথ অবরোধও শুরু করেন তারা। আটকে দেওয়া হয় সমস্ত ট্রাক। শেষমেষ খবর পেয়ে হাজির হয় পুলিশ। স্বাস্থ্যদপ্তরের সঙ্গে যোগাযোগ করে অ্যাম্বুলেন্স আনা হয়। তারপর ব্যক্তিকে পাঠানো হয় কোভিড হাসপাতালে।


এলাকাবাসীদের অভিযোগ, ব্যক্তিকে এখানে থাকেন না। অন্যত্র থাকেন। তিনি এখানে আসার পর তাকে হাসপাতালে যাওয়ার কথা বলি। না যাওয়ায় প্রশাসনের ব্যবস্থা নেওয়ার দাবিতেই আমরা পথ অবরোধ শুরু করি।

তবে যেখানে বারবার প্রচার করা হচ্ছে আমাদের লড়াইটা রোগের বিরুদ্ধে৷ রোগীর বিরুদ্ধে নয়। সেখানে এমন ঘটনায় পর কিছু মানুষের ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন উঠছে। বহুক্ষেত্রেই দেখা যাচ্ছে করোনা রোগীদের পরিবারকে একঘরে করে দেওয়া হচ্ছে। সুস্থ হয়ে উঠলেও তাদের এলাকায় থাকতে দেওয়া হচ্ছেনা। ফলে এই অবস্থায় এলাকাবাসীদের আরও সহানুভূতিশীল হওয়া উচিত বলে মনে করছেন চিকিৎসক ও সমাজকর্মীরা।


মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

This site is protected by reCAPTCHA and the Google Privacy Policy and Terms of Service apply.