শিলিগুড়িতে নাবালিকা খুনের ঘটনায় ৩ মাস পর গ্রেফতার অভিযুক্ত

শিলিগুড়ি, ১২ মার্চঃ শিলিগুড়িতে ১২ বছরের নাবালিকা খুনের ঘটনায় অবশেষে গ্রেফতার হল অভিযুক্ত মনোজ রায়।ঘটনায় প্রায় ৩ মাস পর অসম বাংলা সীমান্ত এলাকা থেকে রবিবার রাতে অভিযুক্তকে গ্রেফতার করলো শিলিগুড়ি মেট্রোপলিটন পুলিশের স্পেশাল অপারেশন গ্রুপ(এসওজি) এবং প্রধাননগর থানার পুলিশ।


উল্লেখ্য, ২০২২ সালের ৫ ডিসেম্বর শিলিগুড়ির বাসিন্দা ষষ্ঠ শ্রেনীর ছাত্রী স্কুলে পরীক্ষা দিতে যাওয়ার জন্য বাড়ি থেকে বেরিয়ে নিখোঁজ হয়ে যায়।ঘটনার পর নাবালিকা ছাত্রীর খোঁজ শুরু হতেই পরিবারের সদস্যরা জানতে পারেন তাদের প্রতিবেশীর জামাই মনোজ রায় নাবালিকাকে অপহরণ করেছে।ঘটনায় অভিযোগ দায়ের হয় থানায়।তদন্তে নামে পুলিশ।সেই থেকে অভিযুক্ত নিখোঁজ হয়ে যায়।ঘটনার প্রায় ৮ দিন পর গত ১৩ ডিসেম্বর সুকনা চা বাগানের খৈরানি লেন থেকে ছাত্রীর পচা গলা দেহ উদ্ধার করে পুলিশ।ছাত্রীকে অপহরণ করে খুনের অভিযোগ উঠে অভিযুক্ত মনোজ রায়ের বিরুদ্ধে।

এদিকে মৃতদেহ উদ্ধারের পর অভিযুক্তের শ্বশুরবাড়িতে ব্যাপক ভাঙচুর করে মৃতার পরিবার।অন্যদিকে অভিযুক্তের গ্রেফতারের দাবীতে পথে নামে শহরের মানুষ।পুলিশ অভিযুক্তকে ধরতে অন্ধ্রপ্রদেশ, কর্ণাটক এবং কেরালায় অভিযান চালায়। কিন্তু অভিযুক্ত বারবার জায়গা বদল করে পালিয়ে বেড়াচ্ছিল।এর মধ্যে কেটে যায় প্রায় ৩ মাস।অবশেষে গোপন সূত্রের খবরের ভিত্তিতে রবিবার রাতে অসম-বাংলা সীমান্ত এলাকা থেকে অভিযুক্তকে গ্রেফতার করে এসওজি এবং প্রধাননগর থানার পুলিশ।


সোমবার প্রধাননগর থানায় একটি সাংবাদিক সম্মেলন করে গোটা বিষয়টি জানান শিলিগুড়ি মেট্রোপলিটন পুলিশের এডিসিপি শুভেন্দ্র কুমার।তিনি বলেন, গোপন সূত্রের খবরের ভিত্তিতে রবিবার রাতে অসম বাংলা সীমান্ত থেকে অভিযুক্ত মনোজ রায়কে গ্রেফতার করে আজ সকালে শিলিগুড়িতে আনা হয়েছে।গতকাল ভুটানে যাওয়ার পরিকল্পনা ছিল অভিযুক্তের।আজ ধৃতকে শিলিগুড়ি আদালতে পেশ করা হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *