জলের অভাবে ফেটে যাচ্ছে ধানের জমি, দুশ্চিন্তায় শালগুড়ি গ্রামের কৃষকেরা

রাজগঞ্জ, ৫ আগস্টঃ জলের অভাবে ফেটে যাচ্ছে ধানের জমি।একমুঠো ধানও ঘরে তুলতে পারবেন কি না তা নিয়ে দুশ্চিন্তায় ভুগছেন রাজগঞ্জের শালগুড়ি গ্রামের কৃষকেরা।সেচ দপ্তরে আবেদন করেও চাষের জল পাওয়া যাচ্ছে না বলে কৃষকদের অভিযোগ।


রাজগঞ্জ ব্লকের অন্যান্য জায়গার মতো শালগুড়ি গ্রামের কৃষকরা ধান চাষের জন্য তিস্তার সেচ নালার জলের উপর নির্ভরশীল।শালগুড়ি গ্রামের কৃষকদের অভিযোগ,  এলাকায় এক হাজারের অধিক বিঘা জমিতে আমন ধান চাষ করা হয়েছে।বেশি লাভের আশায় কৃষি দপ্তরের পরামর্শ মেনে নির্ধারিত ধানের চাষ করা হয়েছে।কিন্তু চারা রোপণের পর সেচ নালায় জল দেওয়া হচ্ছে না।চাষের জমি ফেটে চৌচির হয়ে যাচ্ছে।সেচ দপ্তরে আবেদন করার পরও জল দেওয়া হচ্ছে না।জলের অভাবে ধানের চারা মরে যাচ্ছে।ধান না হলে সংসার চালানোর উপায় থাকবে না।

অন্যদিকে এই বিষয়ে করোতোয়া তালমা ব্যারেজ সাব ডিভিশনের ইঞ্জিনিয়ার শৈবাল পাইন ফোনে আমাদের প্রতিনিধিকে জানান, কৃষকরা জলের দাবিতে দপ্তরে এসেছিলেন।সেচ নালায় জল ছাড়লে অন্য ফসলের ক্ষতি হবে কী না সেব্যাপারে কৃষি দপ্তর চিঠি দিয়ে জানালে জল ছাড়ার ব্যবস্থা করা হবে।


মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

This site is protected by reCAPTCHA and the Google Privacy Policy and Terms of Service apply.